Home » জানা থাকা ভালো » কি করনীয় যখন চাকুরী বদল করবো।
কি করনীয় যখন চাকুরী বদল করবো -what to do when I change Jobs
কি করনীয় যখন চাকুরী বদল করবো -what to do when I change Jobs

কি করনীয় যখন চাকুরী বদল করবো।

আমাদের আজকের আলোচনার বিষয় কি করনীয় যখন চাকুরী বদল করবো। চাকুরী বদলের সিদ্ধান্ত জীবনের অনেক গুরুত্বপূর্ন সিদ্ধান্তের মাঝে খুবই গুরুত্বপূর্ন একটি বিষয়। তাই এই সিদ্ধান্ত নেবার পূর্বে আমাদের কিছু বিষয়ের প্রতি লক্ষ রাখতে হবে। আসুন জানি বিষয় গুলো সম্পর্কে।

চাকুরী বদলের আগে করনীয় বিষয় সমূহঃ

১. যদি ‍বিশ্বাস থাকে অটুট তাহলে দুনিয়ার সব কিছু আপনার হাতের মুঠোয়ঃ আত্মবিশ্বাস। জীবনে যে কোন কিছু পেতে হলে আত্ম বিশ্বাস থাকতে হবে অটুট। নিজের প্রতি বিশ্বাস থাকতে হবে আপনি যে কোন কাজের জন্য যে কোন পরিবেশের সাথে মানিয়ে নিতে সদা প্রস্তুত। আর এই আত্মবিশ্বাস আপনার ক্যারিয়ার  বা আপনার কর্মক্ষেত্র পরিবর্তনে গুরুত্বপূর্ন ভূমিকা রাখতে বিশেষ ভাবে সহায়তা করবে।

আপনি নিজেকে ভিন্ন ভাবে নিজেকে কল্পনা করুন- ভাবুন আপনি একজন মার্কেটার, একজন রাজনীতিবীদ একজন শিক্ষক একজন লেখক বা অন্য যেকোন সেক্টরে নিজেকে ভাবুন এবং নিজেকে সেভাবে মেলে ধরবার চেষ্ট করুন যা নিজের ইচ্ছার প্রতিফলন হয়।

সব সময় মনে রাখতে হবে- আপনি যদি নিজের ইচ্ছার প্রতি আস্থা রাখেন আপনার ইচ্ছার প্রতি যদি আপনার আত্মবিশ্বাস যদি থাকে অটুট তাহলে আপনি সব কিছুই পারবেন।

২. যোগাযোগঃ আপনি যে বিষয়ের প্রতি আত্মবিশ্বাসী সে সেক্টরের সাথে সম্পৃক্ত মানুষের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করুন এবং সম্পর্ক উন্নয়নে অগ্রনী ভুমিকা রাখুন।

আপনার কাঙ্খিত পেশায় সম্পৃক্ত প্রতিষ্ঠানে কাজের পরিবেশ এবং তাদের নিয়োগের ধরন জানার এবং বুঝবার কার্য্যকর মাধ্যম হচ্ছে সেখানে কর্মরত কর্মকর্তা কর্চারীদের সাথে আলোচনা করা বা কথা বার্তা বলা। এর মাধ্যমে আপনার একটি নিজস্ব নেটওয়ার্ক তৈরী হবে যা আপনাকে আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী পেশা নির্বাচনে অনেক বেশী সহায়তা করবে।

৩. সিদ্ধান্ত গ্রহনঃ কাজের ক্ষেত্রে কোন কাজে আপনি দক্ষ? কোন কর্ম পরিবেশে আপনি স্বাচ্ছন্দে থাকবেন? কাজের কোন দিক আপনাকে আকৃষ্ট করে? কোন ধরনের কাজ আপনি পছন্দ করেন? এসব প্রশ্ন আপনাকে সম্ভাব্য সঠিক কর্মক্ষেত্র নির্ধারনে সহায়তা করবে।

নিজের কার্য্যক্ষেত্র নিয়ে একটু নিজেকে সময় দিন। ভাবুন, এই একটু সময়ই আপনাকে কাজ বদলের সিদ্ধান্ত গ্রহনে বিশেষ ভুমিকা রাখবে।

৪. চাকুরী পরিবর্তনের আগে একটু ধীরে চলারনীতি অনুসরন করুনঃ হুট করে কোন চাকুরী পরিবর্নের সিদ্ধান্ত নিবেন না। ভাবুন কেন আপনি চাকুরী পরিবর্তন করতে চাচ্ছেন? আর নুতন চাকুরীর জন্য নিজেকে কতটা পরিবর্তন করতে পেরেছেন?

আপনিকি নিজেকে আরো বেশী দক্ষ করবার জন্য কি করছেন যাতে আপনি নুতন কাজের জন্য নিজেকে আরো বেশী আকর্ষনীয় ভাবে নিয়োগকর্তার কাছে তুলে ধরবার জন্য। আপনি কি নিজেকে আরো দক্ষ করতে বিশেষ ভাবে মনোনিবেশ করেছেন? আপনি দক্ষতা বৃদ্ধিতে কোন নুতন কোর্স করছেন? ভাষার দক্ষতা বৃদ্ধিতে কাজ করছেন? নিজের অন্যভাষার লেখনীকে আরো বেশী সমৃদ্ধ করতে সচেষ্ঠ হচ্ছেন? যদি উত্তর হ্যা হয় তাহলে, নিজেকে আরো একটু বেশী সময় দিন। নিজেকে আরো বেশী দক্ষ করে তুলুন। আর এভাবেই আপনি আপনার নুতন কর্মক্ষেত্রের জন্য প্রস্তুত হয়ে যাবেন।

আর তাই চাকুরী পরিবর্তনের আগে একটু ধীরে চলারনীতি অনুসরন করুন। নিজেকে অনেক বেশী প্রস্তুত করে তার পরে চাকুরী পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিন।

৫. সিভি লিখুন সংক্ষেপেঃ চাকুরীর ক্ষেত্রে সিভি এটি গুরুত্বপূর্ন বিষয়। খেয়াল রাখবেন যে সিভি লিখবার সময় যেন অনাকাংখিত ভাবে বড় করা না হয়। সিভিতে আপনার কাজের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় বিষয়ই অন্তর্ভূক্ত করুন। যে বিষয় গুলো আপনাকে অন্যেদের থেকে আলাদা করবে সে বিষয়ের সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করুন। তবে মনে রাখবেন যে, প্রয়োজনীয় বিষয় গুলো যেন কোন অপ্রসাঙ্গীক কথা লিখে রিক্তির কারন না তৈরী হয়।

সিভি লিখবার পূর্বে একটি বিষয় খেয়াল রাখবেন যে, সিভিতে অতি প্রয়োজনীয় বিষয় যেন বাদ না পড়ে যায়। অবশ্যই চেষ্টা করবেন যেন সিভি ২ পৃষ্ঠার চেয়ে বড় না হয়ে যায়। এক পৃষ্ঠায় গুছিয়ে লিখতে পারলে সবচেয়ে ভালো হয়।

সিভি লিখবার পূর্বে আরো একটি বিষয়ে খেয়াল রাখবেন, যে কাজের বিষয়ে আবেদন করবেন সে কাজের বিষয়ে ভালো ভাবে জেনে নিবেন।

আরো একটি গুরুত্বপূর্ন বিষয় হচ্ছে- আপনার সিভিটি এমন হতে হবে যেন, নিয়োগকর্তা আপনার সিভিটি পড়ে আপনার ব্যপারে জানবার আগ্রহ তৈরী হয়, আপনি যে কাজের জন্য আবেদন করবেন সে কাজে আপনার বাস্তব অভিজ্ঞতা সুন্দর ভাবে তুলে ধরুন। যা আপনাকে নিয়োগ কর্তার কাছে আকর্ষনীয় ভাবে তুলে ধরতে সহায়তা করবে।

পরিশেষেঃ চাকুরী বদল করবার পূবে অবশ্যই নিশ্চিত হতে হবে যে,  আপনার বর্তমান চাকুরী ছাড়বার আসলেই কি কোন যৌক্তিক কারন আছে কি না। না চাকুরী ছাড়বার পরে, পূর্বের চাকুরীর জন্য আফসোস করবেন কি না? বর্তমান চাকুরী ছাড়বার পূর্বে, এবং নুতন চাকুরীতে যোগ দেবার পূর্বে নিশ্চিৎ হোন যে, নুতন চাকুরী পুরানো চাকুরীর চেয়ে আপনার স্বাচ্ছন্দ বেশী নিশ্চিৎ করবে। খেয়াল রাখবেন ঘন ঘন চাকুরী পরিবর্তন আপনার ক্যারিয়ারের জন্য ভালো না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six − three =

shares
error: Content is protected !!