Home » জানা থাকা ভালো » কি করনীয় যখন পাসপোর্ট হারিয়ে যাবে?
What to do when the passport will be lost - কি করনীয় যখন পাসপোর্ট হারিয়ে যাবে
What to do when the passport will be lost - কি করনীয় যখন পাসপোর্ট হারিয়ে যাবে

কি করনীয় যখন পাসপোর্ট হারিয়ে যাবে?

পাসপোর্ট বর্তমান সময়ের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় একটি বিষয়। যে কোন কারনে আমরা আমাদের এই প্রয়োজনীয় জিনিষটি হারিয়ে ফেলতে পারি। আর এর ফলে পড়তে পারতে পারি নানা বিধ সমস্যায়। বিদেশের মাটিতে এটা আপনার নাগরিকত্তের প্রমান স্বরুপ। এজন্যই আমাদের উচিৎ পাসপোর্ট এর একাট ফটো কপি করে রাখা।
আমাদের পাসপোর্ট দেশে বা দেশের বাইরে যে কোন স্থানেই হারাতে পারে। এজন্যই আজ আমরা জানবো পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে আমরা কি করবো?

প্রথমেই জানি দেশে পাসপোর্ট হারালে কি করতে হবে।

পাসপোর্ট বা এজাতীয় গুরুত্তপূর্ন জিনিষ হারালে প্রথম কাজটিই হলো সংশ্লিষ্ট থানায় সাধারন ডাইরী করা। আপনার পাসপোর্টটিতে যদি কোন দেশের ভিসা লাগানো থাকে তাহলে অবশ্যই সে বিষয়টি থানায় সাধারন ডায়েরী করবার সময় অবশ্যই উল্লেখ করতে হবে।

সাধারনতঃ পাসপোর্ট হারানো কোন ডায়েরী করা হলে পুলিশ ইমিগ্রেশন ডাটাবেজে পাসপোর্টটি কালো তালিকা ভুক্ত করে যাতে অন্য কেউ এ পাসপোর্ট ব্যবহার করে বিদেশে যেতে না পারে।

হারানো বা চুরি যাওয়া পাসপোর্টটি পাওয়া গেলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার কাছে আবেদন করতে হবে ইমিগ্রেশন ডাটাবেজে পাসপোর্টটি কালো তালিকা থেকে প্রত্যাহারের জন্য। আর পাসপোর্টটি না পাওয়া গেলে, পাসপোর্ট অফিসে থানায় করা সাধারন ডায়েরী এর ফটোকপি সহ পূনরায় আবেদন করলে পাসপোর্ট অফিস থেকে আপনার জন্য আরেকটি পাসপোর্ট ইস্যু করবে।

এবার জানি বিদেশে পাসপোর্ট হারিয়ে গেলে আমরা কি করবো?

বিদেশে পাসপোর্ট হারানো বিদজনক একটি বিষয়। সঠিক কাগজ কাছে না থাকায় জেলে যেতেও হতে পারে। আর তাই এতোসব ঝামেলা থেকে দুরে থাকতে আমাদের উচিৎ নিকটস্থ কোন পুলিশ বা থানায় সাধারন ডায়েরী করা।
এর পর দ্বিতীয় কাজটি হবে যতদ্রুত সম্ভব পাসপোর্ট এর ফটোকপি সহো বাংলাদেশ দুতাবাসে যোগাযোগ করা। দুতাবাস নুতন পাসপোর্ট তৈরীতে সহায়তা করবে।

যদি কোন ট্রাভেল এজেন্সি ভ্রমনে সহায়তা করে থাকে তাহলে তারাই বাংলাদেশ দুতাবাস বা হাই কমিশনে যেতে সহায়তা করবে। বাকী কাজটা বাংলাদেশ দুতাবাস করবে। বাংলাদেশ ইমিগ্রেশন এবং পাসপোর্ট অফিসের তথ্য জাচাই করে বাংলাদেশ হাই কমিশনে একটি প্রতিবেদস পত্র পাঠাবে আর এ প্রতিবেদন পত্রই ভালোভাবে দেশে ফিরতে সহায়তা করবে।

পরিশেষে এটা বলা যায় বিপদে পড়ার থেকে বিপদ থেকে দূরে থাকাই ভালো।

দূতাবাস গুলো রয়েছে প্রবাসীদের সেবা দিবার জন্য। আর তাই বিদেশ ভ্রমণে কোনো সমস্যার সম্মুখীন হলে আমাদের উচিৎ যত দ্রুত সম্ভব দূতাবাসে যোগাযোগ করা। এবং সমস্যার কথা খুলে বলা। এতে আর যাই হোক বিদেশে বিপদ এড়াতে সহায়তা করবে।

পাসপোর্ট এমন একটা বিষয় যেটা বিদেশে আমাদের পরিচয় নির্দেশনা করে, আর তাই পরিচয়হীন ভাবে ঘুরে বেড়ানো বিদেশে বিপদের আশংকা বাড়তেই থাকে আর তাই এমন সমস্যায় আমাদের কাজ স্থানীয় পুলিশ এবং আমাদের নিজ দেশের দূতাবাস। যেকোনো দেশের নাগরিকদের জন্য একই নিয়ম প্রযোজ্য।

আমাদের পরবর্তী বিষয় ন্যাশনাল আইডি কার্ড হারিয়ে গেলে আমরা কি করবো। আগামী সপ্তাহে আমরা এ বিষয়ে জানবো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 − eight =

shares
error: Content is protected !!